বাঘ বিধবা

0

জীবন বাঁচাতে, জীবিকার তাগিদে সুন্দরবনে কেউ যায় মাছ ধরতে, কেউ যায় বনের কাঠ কাটতে কেউবা আবার মধু সংগ্রহ করতে। আর এরই মাঝে কখনো কখনো এসব জেলে, বাওয়াল ও মৌয়ালদের ওপরে হামলে পড়ে রয়েল বেঙ্গল টাইগার। যারা বাঘের কবলে পড়ে, তাদের মধ্যে খুব কম মানুষই জীবিত ফিরে আসেন। এমন ঘটনার শিকার স্বামীহারা ৩০ জন বিধবা মানবেতর জীবনযাপন করছেন সাতক্ষীরার শ্যামনগরের মুন্সিগঞ্জ বাজারের জেলে পাড়ায়।

যেসব বনজীবী আঘের থাবায় মারা যান, তাদের স্ত্রীদেরকেই সমাজ নাম দিয়েছে বাঘ বিধবা। তাদেরকে ডাকা হয় অপয়া-অলক্ষ্মী ইত্যাদি বিশেষণে। যেতে পারেন না কোন সামাজিক অনুষ্ঠানে।স্থানীয় প্রশাসন বা জনপ্রতিনিধি থেকে মেলে না কোন প্রকার সহায়তা। বাঘের আক্রমণের শিকার হয়ে ভাগ্যক্রমে বেঁচে ফেরা জেলে সুভাষ মন্ডল জানান ভয়ঙ্কর সেই অভিজ্ঞতার কথা। শরীরে জুড়ে গভীর সব ক্ষত। সুভাষ না ফিরলে তার স্ত্রীকেও হয়তো হতে হতো একই রকম বঞ্চণার শিকার। বাঘ-বিধবাদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচীর আওতায় ভাতার ব্্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানালেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক। কুসংস্কারের বেড়াজাল ছিঁড়ে স্বাভাবিক জীবনের যাপনের নিশ্চয়তা চান বাঘ-বিধবা নামের মানুষগুলো।

Share.

Comments are closed.