শারক্বীয়ার শুরা সদস্য তরুণদের অস্ত্র প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছিল

0

নতুন জঙ্গি সংগঠন ‘জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়া’র শুরা সদস্য ও সামরিক শাখার প্রধান রনবীর ও তার সহযোগী বোমা বিশেষজ্ঞ বাশারকে কক্সবাজারের কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প সংলগ্ন এলাকা থেকে গ্রেফতার করে রেব। ডাকাতির এক মামলায় গ্রেপ্তারের পর কারাগারে থাকাকালে জঙ্গিদের সঙ্গে রনবীরের সাক্ষাৎ হয় এবং জেএমবির আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়। জেল থেকে বেরিয়ে বিভিন্ন সময়ে কারাগারে থাকা জেএমবি সদস্য ও তাদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে এবং জঙ্গিবাদে জড়িয়ে পরে রনবীর।

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকায় সোমবার গুলি বিনিময়ের পর নতুন জঙ্গি সংগঠন ‘জামাতুল আনসার ফিল হিন্দাল শারক্বীয়ার’ সামরিক শাখার প্রধান রনবীরসহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে রেব। সোমবার ভোরে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে দেশি ও বিদেশি তিনটি অস্ত্র, গোলাবারুদ ও নগদ টাকাসহ কয়েকটি বিডিও কনটেন্ট উদ্ধার করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে কারওয়ানবাজার রেবের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান রেবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক । তিনি আরও বলেন, এই জঙ্গি সংগঠনের আমির আনিসুর রহমান ওরফে মাহমুদ। যার নেতৃত্বে উগ্রবাদী সংগঠনটি পরিচালিত হচ্ছে বহু দিন ধরে। এছাড়াও উগ্রবাদী এই সংগঠনে ছয় জন শূরা সদস্য রয়েছে, যারা দাওয়াতি, সামরিক, অর্থ, মিডিয়া ও উপদেষ্টার দায়িত্বে রয়েছেন বলে জানান এই কর্মকর্তা। রনবীরের নেতৃত্বে তরুণদের অস্ত্র প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছিল এই সংগঠনটি ।

Share.

Comments are closed.